জেমিনি গণেশন

জেমিনি গণেশন
Gemini Ganesan 300.jpg
জেমিনি গণেশন
জন্মগণপতি সুব্রমনিয়া শর্মা[১]
(১৯২০-১১-১৭)১৭ নভেম্বর ১৯২০
পুদুক্কোত্তাই,
ব্রিটিশ ভারত
(এখন তামিলনাড়ু, ভারত)
মৃত্যু২২ মার্চ ২০০৫(২০০৫-০৩-২২) (৮৪ বছর)
চেন্নাই, ভারত
অন্য নামকাদাল মান্নান, জেমিনি গণেশ, জেমিনি মামা[২]
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানমাদ্রাজ ক্রিশ্চিয়ান কলেজ, চেন্নাই
পেশাঅভিনেতা
কার্যকাল১৯৪৭ - ২০০২
দাম্পত্য সঙ্গীআলামেলু (১৯৪০–২০০৫) (জেমিনির মৃত্যু)
পুষ্পাবলী (১৯৯১ সালে মৃত্যু)
সাবিত্রী (অভিনেত্রী) (১৯৫৪-১৯৮১) (১৯৮১ তে মৃত্যু)
জুলিয়ানা
সন্তানকমলা সেলভারাজ (কন্যা)
রেখা (অভিনেত্রী) (কন্যা)
রেবতী স্বামীনাথান (কন্যা)
নারায়ণাই গণেশন (কন্যা)
জয়া শ্রীধর (কন্যা)
বিজয়া চমুন্দেশ্বরী (কন্যা)
সতীশ কুমার (পুত্র)

রামস্বামী গণেশন[৩] (১৭ নভেম্বর ১৯২০ – ২২ মার্চ ২০০৫), যিনি জেমিনি গণেশন নামে সর্বাধিক পরিচিত, ছিলেন একজন ভারতীয় তামিল চলচ্চিত্র অভিনেতা। তাকে তামিল ভাষায় 'কাদাল মান্নান' যার বাংলা অর্থ হচ্ছে প্রেমের রাজা বলা হত কারণ তার অভিনীত চলচ্চিত্রগুলোর প্রেম কাহিনীগুলো অনেক দর্শক জনপ্রিয়তা পেত।[৪] জেমিনি ছিলেন তামিল চলচ্চিত্র শিল্পের অন্যতম একজন কিংবদন্তি অভিনেতা আরো ছিলেন এম জি রামচন্দ্রন (এমজিআর হিসেবে পরিচিত), শিবাজী গণেশন, নাগেশ, জেমিনির পত্নী সাবিত্রী, সরোজা দেবী (অভিনেত্রী), কাঞ্চনা (অভিনেত্রী) এবং কে আর বিজয়া (অভিনেত্রী)। শিবাজী গণেশন আর এম জি রামচন্দ্রনের চাইতে জেমিনি অভিনীত চলচ্চিত্রগুলো ভালো ব্যবসা করতে পারত প্রেম কাহিনী থাকার কারণে।[৫][৬] জেমিনি অনেক গুরুত্বপূর্ণ পুরষ্কার লাভ করেন তন্মধ্যে রয়েছে পদ্মশ্রী (১৯৭১), কালাইমামণি, এম জি রামচন্দ্রন গোল্ডমেডেল এবং স্ক্রীন লাইফটাইম এ্যাচিভমেন্ট এ্যাওয়ার্ড। তার জন্ম একটি গোঁড়া হিন্দু পরিবারে হয়েছিল এবং তামিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ১৯৪০ এর দশকের মাঝখানদিকে ঢোকার সময় তিনি ছিলেন অন্যতম স্নাতক।[৭]

জেমিনি ১৯৪৭ সালের তামিল চলচ্চিত্র মিস মালিনী দ্বারা তার অভিনয় জীবনের অভিষেক ঘটান, কিন্তু তিনি ১৯৫৩ সালের চলচ্চিত্র দাই উল্লাম এ খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয় করে পরিচিতি পান।[৮] ১৯৫৪ সালে মুক্তি পাওয়া চলচ্চিত্র মানাম পোলা মাঙ্গালইয়াম তাকে প্রকৃত তারকাখ্যাতি এনে দিয়েছিলো।[৯] জেমিনি তার সমসাময়িক তামিল তারকা এমজিআর এবং শিবাজি গণেশনের মত রাজনীতিতে জড়িয়ে যাননি, তাছাড়া এমজিআর এবং শিবাজি অভিনয় জগতে প্রবেশ করার আগে মঞ্চনাটকে অভিনয় করতেন যেটা জেমিনি করেননি। তাছাড়া ইনি তার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য কোনো জাতীয় পুরস্কারও পাননি।[১০] প্রায় পঞ্চাশ বছরের অভিনয় জীবনে জেমিনি তামিল ভাষার চলচ্চিত্র ছাড়াও অল্প কিছু কন্নড়, তেলুগু, মালয়ালাম এবং হিন্দি ভাষার সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন।[১১] তার অভিনীত চলচ্চিত্রে গায়ক এ এম রাজা এবং পি বি শ্রীনিবাসের গাওয়া গান তাকে জনপ্রিয় হতে সাহায্য করেছিলো।[১২][১৩] একটি সাফল্যমণ্ডিত চলচ্চিত্রজীবন থাকা সত্ত্বেও বাস্তবজীবনে তার একাধিক নারীর সঙ্গে বন্ধন তাকে সমালোচনায় ফেলে দিয়েছিলো।[১৪] পুরো কর্মজীবনে তিনি মাত্র দুটি 'ফিল্মফেয়ার এ্যাওয়ার্ড জিতেছিলেন।

  • তথ্যসূত্র

তথ্যসূত্র

  1. http://www.thehindu.com/arts/books/article1020747.ece
  2. "Gemini Ganesan – Romance King of Tamil Films"। ২ অক্টোবর ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১২ 
  3. "India's 'king of romance' dies"The Times of India। ২৩ মার্চ ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১২ 
  4. "Tribute to Gemini Ganesan"The Times of India। ২২ নভেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১২ 
  5. "MGR-Sivaji-Gemini: TRINITY Album Launched"। IndiaGlitz। ২২ জানুয়ারি ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১২ 
  6. http://lifestyle.iloveindia.com/lounge/gemini-ganesan-biography-4191.html
  7. http://economictimes.indiatimes.com//articleshow/1058538.cms?intenttarget=no
  8. "Gemini Ganesan"। Sify। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১২ 
  9. Randor Guy। "Arts / Cinema : Manam Pola Mangalyam 1954"। The Hindu। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মে ২০১২ 
  10. "Arts / Books : A daughter's tribute"The Hindu। ১ জানুয়ারি ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১২ 
  11. "Book, DVD on Gemini Ganesan to be released"। মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১২ 
  12. "Gemini Ganesan Biography"। Lifestyle.iloveindia.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১২ 
  13. "A.M.Rajah – Tamil singers"। Kollywoodsingers.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১২ 
  14. "The Sunday Tribune – Spectrum"। Tribuneindia.com। ১৭ নভেম্বর ১৯২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ মে ২০১২ 
Other Languages